বীর্য গাড় করার গাছ, ডাক্তারের পরামর্শ ও স্বাস্থ্য টিপস

বীর্য গাড় করার গাছ , বীর্য পাতলা হলে কিভাবে তা বুঝবেন। বীর্য ঘন হওয়া ভালো কিন্তু পাতলা হলে সেটা চিন্তার বিষয় হয়ে পড়ে।ডাক্তার আপনাকে পরামর্শ দেওয়ার সময় আপনার যে রোগগুলি আছে বা আপনি যেসব ওষুধগুলি গ্রহণ করছেন সে সম্পর্কে আপনাকে ডাক্তারের সাথে অবশ্যই আলোচনা করতে হবে,এই পরামর্শ কে গুরুত্ব দিতে হবে এবং  বিভিন্ন কারণে বীর্য পাতলা হতে পারে কিন্তু বীর্য পাতলা হলে বোঝার জন্য কিছু লক্ষণ থাকে সেই লক্ষণ গুলো যদি আপনার ভেতর দেখতে পান তাহলে বুঝতে হবে বীর্য পাতলা হয়ে গেছে বা যাচ্ছে।

বীর্য গাড় করার গাছ 




বীর্য গাঢ় করার উপায় কি?


১) রসুনঃ যদি একটা পুরুষ নিয়মিত রসুন খেয়ে থাকে তাহলে তার যৌন শক্তি দিগুন বেড়ে যাবে। …
৩) দুধ,ডিম ও মধুঃ আমরা সবাই জানি বা সবার মুখ থেকে শুনেছি যে ডিম,দুধ ও মধু শরীরের জন্য খুবই পুষ্টিকর খাবার। …


৪) শিমুল গাছঃ শিমুল গাছের শিকড় ২ বেলা করে ১২ দিন খেলে আপনার বীর্য গাঢ় হবে এবং আপনার লিঙ্গ খুবই শক্তিশালী হবে।


বীর্য পাতলা হলে যৌন মিলনের সময় খুব দ্রুত বীর্য পাত হয়। আর এতে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনমালিণ্য সৃষ্টি হয়। পুরুষদের মধ্যে প্রায় বেশি ভাগই বীর্য গাঢ় করার কথা ভাবে। ডাক্তার আপনাকে পরামর্শ দেওয়ার সময় আপনার যে রোগগুলি আছে বা আপনি যেসব ওষুধগুলি গ্রহণ করছেন সে সম্পর্কে আপনাকে ডাক্তারের সাথে অবশ্যই আলোচনা করতে হবে,এই পরামর্শ কে গুরুত্ব দিতে হবে এবং  ভাবে কিভাবে যৌন মিলন কে আরো দীর্ঘ করা যায়। আজ আপনারদের কে আমি কিছু গাছ গাছালীর গুনাবলীর নিয়ে আলোচনা করবো যা আপনাদের কে এ সমস্যা থেকে রেহাই দিবে।




বীর্য গাঢ় :

 

নিচে বীর্য গাঢ় করার জন্য বিভিন্ন গাছ-গাছালীর গুনাবলী আলোচনা করা হল।
কলমি শাক : কলমি শাক আমরা প্রায় খাই। এ শাকের গুনাবলী অনেক। কলমি শাকের রস 3 চামচ এবং অশ্বদন্ধার মূলের গুড়া (কবিরাজী দোকানে পাওয়া যায়) দেড় গ্রাম গরুর দুধ এক কাপ দুধে মিশিয়ে রাতে শোবার সময় একবার করে খেলে বীর্য গাঢ় হবে এবং স্বপ্নদোষও বন্ধ হবে।



আমরা জানবো তরল বীর্য গাড় করার উপায় বীর্য গাড় করার প্রাকৃতিক উপায় কিন্তু তার আগে জানতে হবে বীর্য পাতলা হয় কেন। কারণ বর্তমানে আমরা অনেক ভুল কাজ করি সেগুলোর জন্য বীর্য পাতলা হয়ে যায় আর সেই কারণ গুলো না জানার জন্য এই ভুল কাজ গুলো করছে সবাই। বীর্য পাতলা হওয়ার কারণ গুলো হলো।



১। মাদক সেবন – যারা অতিরিক্ত মাদক সেবন করে যেমন মদ খাজা সহ আরো যে সকল নেশা জাতীয় জিনিস রয়েছে এগুলো অতিরিক্ত সেবনের ফলে বীর্য পাতলা হয়ে যায়।

২। অতিরিক্ত ঔষধ সেবন – আজকাল ছেলেরা বিভিন্ন রকম ঔষধ সেবন করে যেমম অনেকে বডি তৈরি করার জন্য ঔষধ খায় কিন্তু এই ঔষধের রয়েছে অনেক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া যার ফলে বীর্য তৈরি হয় না এবং বীর্য পাতলা হয়ে যায়।

৩। অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা – বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সারাক্ষণ অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করার ফলে বীর্য পাতলা হয়ে যায়।



৪। সিগারেট বিড়ি খাওয়া – অনেকে রয়েছে মদ খাজা খায় না কিন্তু অতিরিক্ত পরিমাণ সিগারেট বিড়ি খায় তাদেরও বীর্য পাতলা হয়ে যায়।

৫। বীর্য পাতলা হওয়ায় সবচেয়ে বড় একটি কারণ হলো নিয়মিত হস্তমৈথুন করা। যারা নিয়মিত হস্তমৈথুন করে তাদের বীর্য পাতলা হয়ে যায়। তাই যাদের এই অভ্যাস রয়েছে তারা দ্রুত এই অভ্যাস বাদ দিন নইতো একসময় সন্তান জন্মদানের ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবেন।



৬। ঘুম কম হওয়া – বীর্য পাতলা হওয়ার আরেকটি কারণ হলো কম ঘুমানো। অনেকের এই অভ্যাস রয়েছে রাত জাগা। নিয়মিত এভাবে রাত জাগার কারণে বীর্য পাতলা হয়ে যায়। সেজন্য কারো যদি এই অভ্যাস থাকে তাহলে বাদ দিবেন।

(সূত্র: বিভিন্ন ওয়েবসাইট)