সব সময় সর্দি লেগে থাকে,বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও মেডিসিন টিপস

সব সময় সর্দি লেগে থাকে , সর্দি-কাশি, ঠাণ্ডা-কাশি, ঠাণ্ডা লাগা বা সর্দি-জ্বর এক ধরনের ভাইরাসঘটিত সংক্রামক রোগ যা মানবদেহের ঊর্ধ্ব শ্বাসপথ, বিশেষ করে নাকে আক্রমণ করে। সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলতে হবে, জীবনযাত্রা ভালো করতে হবে এছাড়া এই রোগে গলবিল, অস্থিগহ্বর ও স্বরযন্ত্রও আক্রান্ত হতে পারে। ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হবার দুই দিন পর বা তারও আগেই এই রোগের লক্ষণ ও উপসর্গগুলি প্রকাশ পেতে পারে।

সব সময় সর্দি লেগে থাকে




ঠান্ডা লেগে সর্দি হওয়া খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। কিন্তু এমনও কেউ কেউ আছেন, যাদের প্রায় সময়ই সর্দি লেগে থাকে। এর পেছনে থাকতে পারে কয়েকটি কারণ। সর্দি হওয়ার অনেক কারণ রয়েছে।সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলতে হবে, জীবনযাত্রা ভালো করতে হবে এবং  একটা একটা কারণের জন্য অন্য অন্য প্রতিকার রয়েছে।

প্রথম: আপনার সর্দি অ্যালার্জি জনিত সর্দি হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সর্দি খাদ্য, স্থান, পরিবেশের পরিবর্তন, পোশাক ইত্যাদির উপর নির্ভর করে বাড়ে ও কমে। অ্যালার্জি জনিত এই সর্দি সারানোর নির্দিষ্ট কোন চিকিত্‍সা নেই।


খুসখুসে কাশির একটি অন্যতম প্রধান কারণ হলো ধূমপান।

তাই যদি খুসখুসে কাশিতে আক্রান্ত রোগী হন, তাহলে আজই ধূমপানকে না বলুন। ওষুধ কোনো কাজেই আসবে না যদি ধূমপান না ছাড়েন।সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলতে হবে, জীবনযাত্রা ভালো করতে হবে এবং  ধূমপায়ীদের স্মোকার কফ হয়। তামাক শ্বাস ঝিল্লিকে ক্রমাগত ব্যাহত করছে বলেই কাশি উঠছে। শীতকালে তীব্রতা বেড়ে যায়।]
;


অতিরিক্ত মোবাইল চালাতে চালাতে দেখা যাচ্ছে যে আপনাদের উপরে চাপ পড়ে এবং অনেক রাত জেগে থাকার কারণে আপনার নাকে প্রেসার পড়তে পারে এবং আস্তে আস্তে ক্রমান্বয়ে না ঢুকে যাবে এবং উচ্চতা বৃদ্ধি পাবে হঠাৎ করে আপনার ঠান্ডা হয়ে যাবে।

 

সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলতে হবে, জীবনযাত্রা ভালো করতে হবে এবং সব সময় অতি দ্রুত ঘুমিয়ে পড়বে উঁচু বালিশে ঘুমাবেন না আপনার জন্য উত্তম , উপরের পরামর্শ গুলোকে যদি আপনার নিয়মিতভাবে অভ্যাসে পরিণত করেন তাহলে আশা করি আল্লাহর রহমতে আপনার নিয়মিত সর্দি লাগা থেকে পরিত্রান পেতে পারেন।




মাক্স ইউজ করলে অনেকটা কম থাকে এবং সবসময় চেষ্টা করতে হবে যাতে আপনার অ্যালার্জি আছে, তা থেকে দূরে থাকার।

দ্বিতীয়: যেহেতু ঔষধ খেলে সারে এবং না খেলে আবার বেড়ে যায় সেহেতু আপনার অভ্যাসের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। সঠিকভাবে নিয়ম মেনে চলতে হবে, জীবনযাত্রা ভালো করতে হবে এবং যেমন- ১.. ধুলো বালি পূর্ণ এলাকায় কম যাতায়াত, কেননা নাকের ভিতর বেশি ধুলো ঢুকলে সর্দি হয়। ২.. সব সময় জল নিয়ে ঘাটাঘাটি না করা বা জলের সাথে সম্পর্কিত এমন কোন কাজ না করা। ৩.. শীতকালে দেহে ঠান্ডা কম লাগানো।
]

(সূত্র: বিভিন্ন ওয়েবসাইট)